আজ ১৭ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং; ২রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ; হেমন্তকাল

হাথুরু থেকে গেলে আলহামদুলিল্লাহ: মাশরাফি

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

হাথুরুসিংহে ঢাকায় আসছেন দুই একদিনের মধ্যে। বিসিবি তাকে শেষবার অনুরোধ জানাবে দায়িত্ব চালিয়ে যেতে। রাজি না হলে অন্তত জানুয়ারির শ্রীলঙ্কা সিরিজ পর্যন্ত থাকতে অনুরোধ করা হবে। হাথুরু কী রাজি হবেন? এই প্রশ্নটার উত্তর কারো জানা নেই। কোচ ইস্যুতে অবশ্য অনেকটাই নির্ভার বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

খেলোয়াড়দের এ নিয়ে চিন্তা না করারও পরামর্শ দেন। তিনি ব্যাপারটা ছেড়ে দেন বোর্ডের উপর। তার কথা-হাথুরু থাকলেও ভালো না থাকলেও তেমন কোনো সমস্যা নেই।

সকাল ঢাকার বারিধারায় মাদক বিরোধী আন্দোলন বিষয়ক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন,‘আমরা বিসিবির অধীনে আছি। বিসিবি কোচের ব্যাপারে যে সিদ্ধান্ত নিবে আমাদের সেটাই মেনে নিতে হবে।একটা কথা আমি এর আগেও বলেছিলাম যে, হাথুরুসিংহে প্রসঙ্গ এখনো কনফার্ম কিছু হয়নি।তিনি দেশে এসে যদি আলোচনা করে থেকে যান, তাহলে তো এটা নিয়ে আলহামদুলিল্লাহ। প্রশ্ন শেষ।আর যদি না থাকেন তাহলে বিসিবি এটা নিয়ে চিন্তা করবে। দেশি হোক বিদেশি হোক, আমার কাছে মনে হয় যেই হোন না কেন খেলোয়াড়রা মানিয়ে নিতে সক্ষম হবে।’

তিনি আরো যোগ করেন, ‘যখন একটা পরিবর্তন আসে তখন যত তাড়াতাড়ি সম্ভব মানিয়ে নেওয়ায়ই  ভালো।অবশ্যই আমরা হাথুরুসিংহের অধীনে খেলে আসছি।সে কি ভাবে টিম সাজায় আমাদের অনেকটা মুখস্থ হয়ে গিয়েছে। যদি সে না থাকে এবং নতুন  কেউ আসলে আমাদের উচিত হবে  যত দ্রুত সম্ভব মানিয়ে নেওয়া।’

মাশরাফি মনে করেন কোচ ইস্যুতে বিসিবি অবশ্যই সঠিক সিদ্ধান্ত নিবে। তিনি বলেন,‘ আমার অন্তত মনে হয় না গত ১৬-১৭ বছরে আমার খেলা জীবনে বোর্ড কখনো কোন খেলোয়াড়ের সাথে আলোচনা কোচ নিয়োগ দিয়েছে। এখনও আমি মনে করছি না যে, আমাদের সাথে আলোচনা করার দরকার আছে।আমাদের দায়িত্ব মাঠে খেলা এবং যেই কোচ আসুক না কেন, তাঁর প্ল্যান মতো খেলা। যাকে বোর্ড আনবে তাঁর ইন্টারভিউ নিয়ে এবং চিন্তা করেই নেওয়া হবে।এটা নিয়ে আমাদের ভাবার কোন প্রয়োজন আছে বলে মনে হয় না।’

জাতীয় দলে অধিক মনোযোগ দিতে সম্প্রতি বিদেশি লিগ খেলার ক্ষেত্রে বাধ্যবাধকতা দিয়েছে বিসিবি। এখন থেকে বছরে দুটির বেশি বিদেশি লিগ খেলতে পারবে না ক্রিকেটাররা। এ প্রসঙ্গে মাশরাফি বলেন,‘ আমার কাছে মনে হয়, জিনিসটা আলোচনা করেই ঠিক করা যেতে পারে।একটা সময় আমি শুনেছি আন্তর্জাতিক ভাবে এই নিয়মটা হতে যাচ্ছে যে, খেলোয়াড়রা জন্য দুইটার বেশি বিদেশি টুর্নামেন্ট খেলতে পারবে না। এটা আমার কাছে নতুন মনে হচ্ছে না।’

প্রিন্ট করুন

মন্তব্য করুন