আজ ২০শে জুলাই, ২০১৮ ইং; ৫ই শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ; বর্ষাকাল

অটোরিকশার চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে কিশোরীর মৃত্যু, পাশে কাঁদছে শিশু

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ময়মনসিংহের নান্দাইলে অটোরিকশার চাকার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে অজ্ঞাত একজন মেয়ে মারা গেছে।  লাশের পাশে বসে কাঁদছে পাঁচ বছরের এক ছেলে শিশু। মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে পৌরশহরের চন্ডীপাশা সিনেমা হল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, উপজেলার চন্ডীপাশা মোড় থেকে অটোরিকশায় করে নান্দাইল পৌর এলাকার চন্ডীপাশা সিনেমা হল সংলগ্ন এলাকায় আসতেই ওই মেয়েটির ওড়না অটোর চাকায় পেঁচিয়ে গিয়ে গুরুতর আহত হন। পরে তাকে নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। সাথে থাকা শিশুটিও মেয়েটির পরিচয় জানাতে পারছে না। লাশের পাশে বসে শিশুটি কেঁদেই চলেছে। তার কান্না কেউ থামাতে পারছেন না।

নান্দাইল হাসপাতালে লাশ দেখতে আসা দর্শনার্থীরা জানান, লাশের পাশে বসে থাকা শিশুটিকে জিজ্ঞাসা করা হলে সে জানায়, তার নাম সোহাগ। মেয়েটি তার আপু (বোন) সোহাগী। বাবার নাম সফিক, মায়ের নাম জানে না। বাড়ি কখনও ভৈরব, আবার কখনও নরসিংদী বলে জানায়।

প্রসঙ্গত, উপজেলার ধুরুয়া গ্রামের  রমজান আলীর বোন রেহেনা বেগমের সাথে গত সোমবার রাতে ময়মনসিংহ বাসস্ট্র্যান্ডে দেখা হয় ওই মেয়েটির। একই বাসে নান্দাইল আসতে রাত হয়ে যাওয়ায় তাদের বাড়িতে আশ্রয় দেয়া হয় ওই মেয়ে ও তার সাথে থাকা শিশুটিকে। সকালে ওই তিনি শিশুটিকে নিয়ে কিশোরগঞ্জ ফুফুর বাড়িতে যাওয়ার কথা বলে রেহেনারদের বাড়ি থেকে বের হয়ে আসেন।  সোমবার বোনের বাড়ি বগুড়া থেকে এসেছে বলে জানিয়েছিল।

নান্দাইল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সরদার ইউনুস আলী জানান, নিহতের পরিচয় শানাক্তের জন্য দেশের সকল থানায় জানানোর পাশাপশি মিডিয়াকর্মীদের সহায়তার মাধ্যমে এ অবুঝ শিশুটিকে পরিবারের কাছে পাঠানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে।

প্রিন্ট করুন

মন্তব্য করুন