আজ ২৩শে জুন, ২০১৮ ইং; ৯ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ; বর্ষাকাল

গফরগাঁওয়ে পানিবন্দি চার শতাধিক পরিবার, দুর্ভোগ চরমে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পুরাতন ব্রহ্মপুত্রের পানি অস্বাভাবিকহারে বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় এবার ময়মনসিংহের গফরগাঁও পৌর এলাকার ৪ ও ৮ নং ওয়ার্ডের চার শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে চরম দুর্ভোগের মধ্যে পড়েছেন।

বেশ কয়েকদিন পানিবন্দি থাকার পর চার ওয়ার্ডের যুবকরা চলাচলের জন্য নিজ উদ্যোগে বাঁশের সাঁকো তৈরি করে দিলেও সেটিও এখন দেড় ফুট পানির নিচে। পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় এ দুটির ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের মধ্যে বাড়ছে আতঙ্ক।

গফরগাঁও সরকারি কলেজে অনার্স তৃতীয় বর্ষে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী ৮নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা রুমানা আক্তার আশা বলেন, অসম্ভব দ্রুতগতিতে পানি বাড়ছে। আমাদের ঘরে এখন পানি উঠে গেছে। এ গতিতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ঘরে দুই ফুট পানি হয়ে যাবে। এ ওয়ার্ডের অনেক বাসিন্দা রাতে ঘুমানোর পূর্বে দেখছেন তার ঘরের বারান্দার নিচে পানি। সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখেন বারান্দায় পানি। আবার অনেকে রাতে দেখছেন বারান্দার কাছাকাছি সকালে দেখছেন ঘরের মেঝেতে পানি।

৮নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবু আক্কাছ জানান, ব্রহ্মপুত্রের পানি বৃদ্ধি এখন ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। এর ফলে এই ওয়ার্ডের প্রায় সব পরিবারেই পানিবন্দি হয়ে পড়ার পাশাপাশি গরু-ছাগল নিয়ে পড়েছেন চরম দুর্ভোগে। এভাবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে আরও শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়বে।

 

৪নং ওয়ার্ডের ষোলহাসিয়া গ্রামের বাসিন্দা কবির আহমেদ জানান, এই ওয়ার্ডের মানুষের চলাচলের জন্য গত বৃহস্পতিবার আমরা এলাকার যুবকরা মিলে শতাধিক ফুট লম্বা বাশের সাঁকো তৈরি করেছি। কিন্তু সেই সাঁকোও এখন দেড় ফুট পানির নিচে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ডা. শামীম রহমান বলেন, শনিবার ওয়ার্ড দুটি সরেজমিনে পরিদর্শন করেছি। পানিবন্দি মানুষদের গফরগাঁও ইসলামিয়া সরকারি হাই স্কুলে থাকার ব্যবস্থা করেছি। পাশাপাশি বন্যার বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকেও অবহিত করা হয়েছে।

প্রিন্ট করুন

মন্তব্য করুন