আজ ২১শে আগস্ট, ২০১৮ ইং; ৬ই ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ; শরৎকাল

পাত্রী দেখতে যাওয়ার পথে দুর্ঘটনা, নিহত ১

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ময়মনসিংহ জেলার গৌরীপুর উপজেলায় বাস ও অটো সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে আবুল বাসার নামে একব্যক্তি নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় অন্তত আরো চারজন গুরতর আহত হয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার গঙ্গাশ্রম এলাকার কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত আবুল বাসারসহ আহতরা সবাই অটো সিএনজির যাত্রী ছিলেন।

আহতরা হলেন, শাহজান (৫০), নাঈম (২২), রাসেল (২৮) ও শিমুল (২২)। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তারা সবাই নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার সাউথকোনা গ্রাম ও শ্ব্যামগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে কিশোরগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা এমকে সুপার নামে একটি বাস উপজেলার গঙ্গাশ্রম এলাকায় পৌঁছে। এমসয় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি যাত্রী ভর্তি অটো সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। তখন ঘটনাস্থলেই আবুল বাসার নামে একজনের মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয় লোকজন ও ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার কর্মীরা আতদের উদ্ধার করে প্রথমে ঈশ্বরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে আহতদের অবস্থার অবনতি হলে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন চিকিৎসক।

ঈশ্বরগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন ইনচার্জ রুকনুজ্জামান রুকন জানান, আমরা খবর পেয়ে ঘটোস্থলে এসে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছি। সিএনজিটি ধুমড়ে মুচকে গেছে।

গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি দেলোয়ার আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পূর্বধলা থেকে সিএনজি করে ঈশ্বরগঞ্জে শাহজাহানের ছেলের জন্য পাত্রী দেখতে আসছিল। পথে গৌরীপুরের গঙ্গাশ্রম এলাকায় পৌঁছালে কিশোরগঞ্জ থেকে আসা এমকে সুপার বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে বাসার নামে একজনের মৃত্যু হয়। আহত হয় আরও চারজন। তাদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় রাখা হয়েছে। ঘাতক বাসটি জব্দ করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

প্রিন্ট করুন

মন্তব্য করুন