আজ ১৮ই আগস্ট, ২০১৮ ইং; ৩রা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ; শরৎকাল

ময়মনসিংহ নগরীতে মোটরচালিত রিক্সার ভাড়া বিড়ম্বনা !

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ময়মনসিংহ শহরের যানজট কমানোর লক্ষ্যে চার হাজার ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক জব্দ করা হয়েছে। সুনির্দিষ্ট নিয়মের আওতায় আনার জন্য এসব ব্যাটারিচালিত যান জব্দ করা হয়েছে বলে দাবি ময়মনসিংহ পৌরসভার। জব্দ করা ইজিবাইকের মধ্য থেকে পরে প্রয়োজনীয় সংখ্যক ইজিবাইককে শহরে চলাচলের অনুমতি দেওয়া হবে।

এদিকে ময়মনসিংহে ইজিবাইক না থাকায় মোটরচালিত রিকশা নগরীর প্রতিটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে। অল্প সংখ্যক রিকশা থাকলেও তারা ভাড়া হাঁকছেন আকাশচুম্বী। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছে অফিসমুখী সাধারণ মানুষ। সকালে সন্তানদের স্কুলে দিতে গিয়ে অভিভাবকরা পড়ছেন মহাবিপাকে। রিকশা ফেলে পায়ে হেঁটে যেতে বাধ্য হচ্ছেন অনেকে। তাতে শিশু শিক্ষার্থীরা হাঁপিয়ে উঠছে।

ময়মনসিংহ পৌরসভা কর্তৃক অবৈধ অটোরিক্সা জব্দ করা হলে গণপরিবহন ব্যবস্থা প্রায় শূন্য হওয়ার সুযোগে রাজপথ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে কয়েক হাজার ব্যাটারিচালিত রিকশা। আতঙ্ক আর উৎকণ্ঠা নিয়ে ঘর থেকে বের হওয়া মানুষগুলো গন্তব্যে যাওয়ার কোনো বাহন পাচ্ছে না। তাই পায়ে হেটেই রওনা হচ্ছে অনেকে। কেউ কেউ রিকশায় চড়ে যাচ্ছেন অফিসে।

ময়মনসিংহ নগরীতে আগের মতো প্যাডেলচালিত রিকশার দেখা মেলে না। বলতে গেলে এর দখল নিয়েছে ব্যাটারিচালিত রিকশা। নগরীতে চলাচলকারী অধিকাংশ রিকশাই ব্যাটারিচালিত। এসব ব্যাটারিচালিত রিকশা প্রায়ই দুর্ঘটনায় পড়ে। রিকশার পাইপের ওপর পা রেখে সিটের ওপর বসে রিকশা চালানোর কারণে দুর্ঘটনা ঘটে থাকে বলে যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার (বিকেলে) নগরীর গাংগিনাপাড় এলাকায় যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নিষিদ্ধ ইজিবাইক না থাকায় মোটরচালিত রিকশা নগরীর প্রতিটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে। অল্প সংখ্যক রিকশা থাকলেও তারা ভাড়া হাঁকছেন আকাশচুম্বী।

সংশ্লিষ্ট সুত্র ও অনুসন্ধানে জানা গেছে, নগরীর যে স্থানগুলোতে রাস্তা থেকে যাত্রী তুলতে তিন চাকার ব্যাটারিচালিত গাড়ি ইজিবাইক গিজগিজ করতো সেই স্থানগুলো দখল করে নিয়েছে রিকশা। বর্তমানে শহরের পরিধি যেমন বেড়েছে, তেমনি এর লোকসংখ্যা, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সংখ্যাও বেড়েছে।

জেলার ত্রিশাল থেকে আশা ব্যাটারিচালিত রিকশা চালক আকবর হোসেন এর সাথে কথা বলে জানা যায়, গ্রামে রিকশা চালালে দিনে একশ থেকে দেড়শ টাকার বেশি ইনকাম (আয়) করা যায় না। আর শহরে প্রতিদিন রিকশা চালালে ইনকাম হয় ৬’শ থেকে ৭’শ টাকা।

প্রসঙ্গত, ময়মনসিংহ শহরের যানজট নিরসনে পৌরসভা ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে তিন চাকার ব্যাটারিচালিত গাড়ি ইজিবাইক গত বৃহস্পতিবার থেকে নগরীর রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়ামে জড়ো করে লাল ও সবুজ রং করে এবং পুরনো লাইসেন্স নবায়ন করে চলাচলের অনুমতি দেয়া হচ্ছে। তবে জব্দ হওয়া চার হাজার ইজিবাইকের মধ্যে ৬০৯টি বৈধ ও তিন হাজারের বেশি অবৈধ। অনুমোদনহীন ইজি বাইকের ব্যাপারে পৌর কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানা গেছে।

প্রিন্ট করুন

মন্তব্য করুন