আজ ২০শে জুলাই, ২০১৮ ইং; ৫ই শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ; বর্ষাকাল

হাতুড়ে ডাক্তারের অপচিকিৎসায় নবজাতকের মাথা বিচ্ছিন্ন

  • 4
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    4
    Shares

Doctorময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলায় হাতুড়ে ডাক্তারের অপচিকিৎসা প্রসূতির গর্ভ থেকে নবজাতক শিশুর মাথা ছিন্ন করে  আনলো। পুলিশ শুক্রবার (১২মে) নবজাতক শিশুর ছিন্ন মাথা উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে প্রেরণ করে।

জানা যায়, তারাকান্দা উপজেলার লাউটিয়া গ্রামের (আবাসন) এলাকার মো: শাহজাহান মিয়ার স্ত্রী মোছা: রাজিয়া খাতুনের (২৩) প্রসব ব্যথা অনুভব হলে ১০ মে বুধবার রাত সাড়ে ৮টায় তার স্বামী শাহজাহান মিয়া মোবাইল ফোনে টেঙ্গুলিয়া গ্রামের আবদুল জব্বারের পুত্র কথিত ডাক্তার আব্দুল হাকিম (৪০)কে ডেকে আনেন। কথিত ডাক্তার আব্দুল হাকিম প্রসূতির শারীরিক অবস্থা দেখে প্রথমে তাকে স্যালাইন দেন এবং স্থানীয় ধাত্রী জবেদা খাতুন ও সখিনা খাতুনকে ডেকে আনেন।

রাত পোনে ১২টায় ধাত্রীরা ওই ডাক্তারকে প্রসবের সময় হয়নি বলে জানান। তারপর কথিত ডাক্তার আব্দুল হাকিম ধাত্রীদের তাড়িয়ে দিয়ে হাতে তৈল মালিশ করে প্রসূতির প্রসবকালে বল প্রয়োগ করিয়া নবজাতক শিশুকে বাহির করে আনার চেষ্টা করেন। চেষ্টাকালে নবজাতকের মাথা ছিন্ন করে নিয়ে আসে।

এ সময় প্রসূতির প্রচুর রক্তক্ষরণ হলে বাড়ির লোকজন জরুরি চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ শহরের একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে নিয়ে ভর্তি করে। এ সুযোগে নবজাতক শিশুর ছিন্ন মাথা রেখে হাতুড়ে ডাক্তার আব্দুল হাকিম পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে প্রসূতির স্বামী মো. শাহজাহান মিয়া বাদী হয়ে হাতুড়ে ডাক্তার আব্দুল হাকিমের বিরুদ্ধে তারাকান্দা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তারাকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মাজহারুল হক জানান, এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়ে নবজাতকের ছিন্ন মাথা উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। আসামি গ্রেপ্তারে পুলিশি জোর তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে।

প্রিন্ট করুন
মন্তব্য করুন