বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন

বন্যার শঙ্কায় ময়মনসিংহের কৃষক !

image-29575ময়মনসিংহ ডিভিশন ২৪ ডট কমঃঃঅসময়ে বর্ষণের জেরে ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে জলাবদ্ধতায় বোরো ফসলের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন ময়মনসিংহের চাষিরা।

চলতি মাসে দিনে-রাতে জেলার বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টি হয় এবং উজানের ঢল নামে। এতে উঠতি বোরো ধানের বহু ক্ষেত তলিয়ে গেছে বলে চাষিরা জানান।

জেলা কৃষি অফিস জানায়, চলতি মৌসুমে ময়মনসিংহে দুই লাখ ৫৯ হাজার ৯৭০ হেক্টর জমিতে বোরো আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। আবাদ হয়, চার হাজার ৬৬০ হেক্টর অধিক জমিতে। তন্মধ্যে অধিক উৎপাদনশীল ৩১ হাজার ৯৯০ হেক্টরে, উফশী দুই লাখ ৩২ হাজার ৪৪৫ হেক্টরে ও স্থানীয় জাত ১৯৫ হেক্টরে। মোট দুই লাখ ৬৮ হাজার ৬৩০ হেক্টরে বোরো আবাদ হয়েছে।

উপজেলাওয়ারি ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় ১৯ হাজার ৯৫৫ হেক্টরে, মুক্তাগাছায় ১৯ হাজার ৬৩০ হেক্টরে, ফুলবাড়িয়ায় ২১ হাজার ২২৫ হেক্টরে, ত্রিশালে ২০ হাজার ৫০০ হেক্টরে, ভালুকায় ১৯ হাজার হেক্টরে, গফরগাঁওয়ে ২২ হাজার ৭৫০ হেক্টরে, নান্দাইলে ২২ হাজার ২০০ হেক্টরে, ঈশ্বরগঞ্জে ২০ হাজার ৭৭০ হেক্টরে, গৌরীপুরে ২০ হাজার ৯০০ হেক্টরে, তারাকান্দায় ২২ হাজার ৫২০ হেক্টরে, ফুলপুরে ২২ হাজার ৩০ হেক্টরে, ধোবাউড়ায় ১২ হাজার ৫৮০ হেক্টরে এবং হালুয়াঘাটে ২০ হাজার ৫৭০ হেক্টরে।

জেলার ভালুকা, গৌরীপুর, হালুয়াঘাট, মুক্তাগাছাসহ বিভিন্ন উপজেলার ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা বলছেন, বৃষ্টি ও ঢলের পানি ক্ষেতে আটকা পড়েছে। কী হবে জানি না।

জেলা-উপজেলা কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, বৃষ্টি হয়েছে। ফলে ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। এলাকা পরিদর্শন করে একটি রিপোর্ট তৈরি করা হচ্ছে।

তারা বলেন, অসময়ে বৃষ্টি হলে ফসলে ক্ষতির আশঙ্কা থাকে। বিশেষত জলাবদ্ধতায় ফসলের ক্ষেত্রে ক্ষতি হতে পারে।

তারা বলেন, গাছের গোড়ায় পানি না জমলে ক্ষতির আশঙ্কা নেই। তবে রোদ উঠলে সংকট কেটে যাবে।

ময়মনসিংহে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক (আঞ্চলিক) অমিতাভ দাস বলেন, এ পর্যন্ত জেলায় ৫ হাজার হেক্টর জমির বোরো ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এমন তথ্য হাতে এসেছে।

প্রিন্ট করুন

মন্তব্য করুন
শেয়ার করুন:





©সর্বস্বত্ব ২০১৬-২০২০ সংরক্ষিত