বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৯:৪৩ অপরাহ্ন

ঝিনাইগাতী-আয়নাপুর সড়ক যান চলাচলের অযোগ্য, জনদূর্ভোগ চরমে

ঝিনাইগাতী-আয়নাপুর সড়ক যান চলাচলের অযোগ্য, জনদূর্ভোগ চরমে

ছবি: ময়মনসিংহ ডিভিশন ২৪

ছবি: ময়মনসিংহ ডিভিশন ২৪

ছবি: ময়মনসিংহ ডিভিশন ২৪

সংস্কার ও সম্প্রসারণের অভাবে শেরপুরের ঝিনাইগাতী-আয়নাপুর সড়কটি যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। ফলে ওই সড়কে প্রায় ৩০হাজার যাতায়াতকারীদের দুর্ভোগ চরম পর্যায়ে পৌঁছলেও টনক নড়ছে না স্থানীয় কর্তৃপক্ষের। ঝিনাইগাতী উপজেলা সদর থেকে ধানশাইল ও দুপুরীয়া হয়ে আয়নাপুর বাজার পর্যন্ত প্রায় দীর্ঘ ৮ কিলোমিটার সড়ক পথ।

মান্ধাতার আমলের ওই সরু সড়কটি কয়েক বছর আগে সড়ক ও জনপদ বিভাগ পাকাকরণের মাধ্যমে যান চলাচলের উপযোগী করে তুললেও তা আর সম্প্রসারণ করা হয়নি। সম্প্রসারণের অভাবে ওই সড়ক পথে একটি গাড়ি প্রবেশ করলে দ্বিতীয় কোন গাড়ি যাতায়াত করতে পারে না। বর্তমানে সড়কটির বিটুমিন কার্পেটিংয়ের স্তরসহ ইট-সুরকি উঠে গিয়ে এবং কোন কোন জায়গায় দেবে গিয়ে ফের চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

সম্প্রতি এ রাস্তার বেশির ভাগ অংশে সুড়কি বিছানো হয়েছে। কিছু কিছু জায়গায় পিচ থাকলেও সেটুকুতে আছে ছোট-বড় গর্ত। এতে ট্রাক, বাস, সিএনজি, ইজিবাইক ও অটোরিক্সাসহ সব ধরনের যানবাহন ভাঙ্গা জায়গার পাশ কাটিয়ে হেলেদুলে চলছে। ফলে এ সড়ক পথে যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে মাঝে-মধ্যেই দুর্ঘটনার কবলে পড়তে হচ্ছে। কোন কোন সময় যাতায়াত বিঘিœত হচ্ছে।

ভূক্তভোগী সিএনজি চালক উজ্বল ও নুর ইসলাম জানান, এ রাস্তা  দিয়ে গাড়ী চালানো খুব ঝুঁকিপূর্ণ। যে কোন সময় দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। এছাড়া ওই সড়কপথে ট্রাকে অবাধে চোরাই পাথর ও বালু পরিবহনও হয়ে থাকে অহরহ।
অভিযোগ রয়েছে, সড়কটি সংস্কারের নামে মাঝে-মধ্যেই সরকারি অর্থ বরাদ্দ দেখিয়ে তা লুটপাট করা হয়। কাজ হয় শুধু কাগজে-কলমে।

এ ব্যাপারে সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুপ্তা চাকমা জানান, ইতোমধ্যে ওই সড়কে দুপুরীয়া অংশে ৩ কোটি ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে ব্রিজ নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। এখন বরাদ্দের অভাবে রাস্তাটির সম্প্রসারণসহ সংস্কারকাজ হাতে নেয়া যাচ্ছে না। তবে বরাদ্দ পেলেই তা করা হবে।

প্রিন্ট করুন

মন্তব্য করুন
শেয়ার করুন:
  • 14
    Shares





©সর্বস্বত্ব ২০১৬-২০২০ সংরক্ষিত