আজ ১৫ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং; ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ; শরৎকাল

ঘুরে আসুন শেরপুরের চন্দ্রকোনা স্লুইস গেইট

  • 115
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    115
    Shares

সুখন, নকলা (শেরপুর) প্রতিবেদক: নবরূপে সজ্জিত হয়ে মানুষের নজর কেড়ে নেওয়া স্থানে রুপান্তরিত হয়েছে এখন শেরপুরের নকলা উপজেলার চন্দ্রকোনার স্লুইজ গেইট। ভ্রমন পিয়াসুদের আড্ডা আর ছবি তোলার উপযুক্ত স্থানে পরিণত হয়েছে এই স্লুইজ গেইট। চন্দ্রকোনা বাজার থেকে মাত্র ৫০০ মিটার দূরে এর অবস্থান।

রাস্তার দু’পাশে বৃক্ষের সমারোহ, লাল কালো বর্ণের সজ্জিত খুঁটি, নজর কেড়ে নেওয়ার মতো সবুজের মাঠ যেন মনকে করে তোলে উতলা। পাশের প্রাকৃতিক পরিবেশের নীরবতার ছোঁয়া যেন ক্লান্ত মনের সুখের আবাস। পথচারিরা এখান যাওয়ার সময় অল্প সময়ের জন্য হলেও এখানে বসে মনকে সতেজ করে নিয়ে বাড়ি ফিরে । পাশ দিয়ে বয়ে চলা ভ্রক্ষ্মপুত্র নদীটি আরো সৌন্দর্যের প্রসারকে উজ্জ্বল করেছে।

বন্যার সময় দু’পাশে পানিতে টইটুম্বর এই স্থানটিতে হাজারো মানুষের ভীড় লক্ষ্য করা যায়।এসময় জেলেদের জীবিকা নির্বাহ করার জন্য মাঝ ধরার উপযুক্ত স্থানও বটে এটি। শুধু তাই নয় এখানে বন্যার সময় বিভিন্ন শ্রেণির মানুষের ছাতা দিয়েও মাছ ধরার দৃশ্য লক্ষ্য করা যায়। যা এক প্রকার রহস্যও বটে। নাটক, ছবি, সিনেমার সুটিং করার উপযুক্ত স্থান হিসেবেও কিন্তু বেঁছে নিতে পারেন এই স্থানটিকে।

আপনার ব্যস্ততম জীবনকে ভ্রমণের স্নিগ্ধতা ছোঁয়াতে এখানে চলে আসতে পারেন । তবে হ্যাঁ, নবরুপের এই স্লুইজ হেগইটের সাথে সেলফি তুলতে ভুলবেন না কিন্তু!

আপনি যে ভাবে আসবেন

শেরপুর সদর থানা মোড় থেকে সিএনজি করে সরাসরি চন্দ্রকোনা আসার পর চন্দ্রকোনা থেকে সোজা পূর্ব দিকে নারায়ণখোলার রাস্তা বরাবর ৫ মিনিট পায়ে হেঁটে এখানে আসতে পারেন। শেরপুর থেকে জন প্রতি মাত্র ৪০ (চল্লিশ) টাকা খরচ করে এই স্থানটি উপভোগ করে যেতে পারেন। নকলা থেকে এটি মাত্র সাত কিলোমিটার দূরে। ময়মনসিংহ থেকে আসার পথে গৌরদ্বার বাজারে নেমে নারায়নখোলা বাজার হয়েও এখানে আসতে পারেন।

প্রিন্ট করুন

মন্তব্য করুন